আজ ময়মনসিংহে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী পুরো, নগরী সেজেছে নতুন সাজে

উন্নয়নের মহাযজ্ঞ চলছে ময়মনসিংহে। বর্তমান সরকারের আমলে বিভাগ ঘোষণার পর সিটি করপোরেশন, শিক্ষাবোর্ড, ময়মনসিংহ জয়দেবপুর ফোর লেন মহাসড়কে উন্নীত হয়েছে। সিটি করপোরেশনে চলমান রয়েছে ১ হাজার ৫৭৬ কোটি টাকার কাজ। প্রায় ৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে খনন হচ্ছে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদ।

বদলে যাওয়া ময়মনসিংহ দেখতে আজ সেখানে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সফরকালে ১০৩টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের পাশাপাশি বিকালে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত সার্কিট হাউস মাঠে জনসভায় যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে ২০১৮ সালের ২ নভেম্বর ময়মনসিংহ এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে এরই মধ্যে পুরো নগরী সেজেছে নতুন সাজে। রং-বেরঙের ব্যানার, ফেস্টুন, বিলবোর্ড, প্ল্যাকার্ড আর আলোকসজ্জায় এখন ময়মনসিংহে উৎসবের আমেজ। সড়ক-মহাসড়ক ছাড়াও পুরো নগরীতে এমনকি অলিগলিতেও শোভা পাচ্ছে চোখ ধাঁধানো তোরণ। বঙ্গবন্ধুকন্যাকে স্বাগত জানিয়ে পোস্টার-ব্যানারে ময়মনসিংহকে সাজিয়ে তুলেছেন নেতাকর্মীরা।

এছাড়া নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা দফায় দফায় বৈঠক করেছে। এ লক্ষ্যে মাঠ পর্যায়ে সারাক্ষণ তৎপর রয়েছে জেলা পুলিশ, আর্মড ব্যাটালিয়ন পুলিশ, র‌্যাবসহ বিভিন্ন গোয়েন্দা।

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. ইকরামুল হক টিটু বলেন, ময়মনসিংহবাসীর প্রত্যাশা পূরণে প্রধানমন্ত্রী আন্তরিক। ইতিমধ্যে তিনি ময়মনসিংহকে বিভাগসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নে বদলে দিয়েছেন। এ কৃতজ্ঞতা থেকেই দলের সভানেত্রীকে স্বাগত জানাতে আমরা সর্বোচ্চটুকু করছি।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল জানান, নেত্রীর আগমনের খবরে উচ্ছ্বসিত গোটা ময়মনসিংহবাসী। এবারও নৌকার আদলে সমাবেশের মঞ্চ তৈরি হচ্ছে। মঞ্চের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে।

জেলা প্রশাসক মোস্তাফিজার রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে সব ধরনের প্রস্ততি সম্পন্ন করা হয়েছে। এ সফরে ৭৩টি উন্নয়ন প্রকল্প এবং ৩০টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন তিনি।

এদিকে উন্নয়নের রূপকার প্রিয় নেত্রীকে একনজর দেখতে মুখিয়ে আছে নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরকে ঘিরে দলমত নির্বিশেষে সবার মুখে উন্নয়নের গুণগান। তারা বলছেন, সব প্রকল্প শেষ হলে পাল্টে যাবে সাধারণ মানুষের জীবনমান।

ময়মনসিংহে নতুন করে শতাধিক প্রকল্প উদ্বোধনের কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।

যেসব প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন: উদ্বোধনের অপেক্ষায় থাকা উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর মধ্যে রয়েছে ময়মনসিংহের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারসংলগ্ন জায়গায় ছবির ভিত্তিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল, ময়মনসিংহ সদরের চরসিরতায় ৫০ শয্যার ডা. মুশফিকুর রহমান শুভ মেমোরিয়াল ইসলামিক মিশন হাসপাতাল, ত্রিশালে এক হাজার আসনের অডিটরিয়াম কাম কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ, ময়মনসিংহ জেলায় ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজি, গফরগাঁওয়ের চরআলগী ইউনিয়নকে ব্রহ্মপুত্রের ভাঙন থেকে রক্ষায় বেড়িবাঁধ নির্মাণ, সদর উপজেলা পরিষদ নতুন হাসপাতাল নির্মাণ, হালুয়াঘাটে গোরবাকুড়া-কড়ইতলী স্থলবন্দর, জেলা আইনজীবী সমিতির মূল ভবন শহীদ অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম ভবন ও বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজ উদ্বোধন। এ ছাড়াও কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে দেশরত্ন শেখ হাসিনা হল, শেখ রেহানা হল, রোজী জামাল হল ও সরকারি আনন্দ মোহন কলেজে ৫০০ শয্যার পাঁচতলা ছাত্র হোস্টেল নির্মাণ এবং বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার উন্নয়ন প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত

Posted on