1. shikdarbabu088@gmail.com : shariatpur Patrika : shariatpur Patrika
  2. shariatpurpatrika@gmail.com : Online Editor : Online Editor
  3. Raselahamed360@gmail.com : Rasel Ahmed : Rasel Ahmed
  4. sohage.mahmud@gmail.com : Smsohage :
শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:২২ পূর্বাহ্ন
শরীয়তপুর জেলা আপডেট
শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি-কে ফুলেল শুভেচ্ছা ভূয়া দুদক কর্মকর্তাসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী আন্ত:জেলা চোর চক্রের চার সদস্যকে আটক করে পুলিশ শরীয়তপুর স্পেশালাইজড হসপিটাল-এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত জেলা প্রশাসকের ওএমএস টিসিবির খাদ্যশস্যের প্রেস ব্রিফিং নবনিযুক্ত সহকারী কমিশনার (ভূমি) মনিজা খাতুন সদরে যোগদান সার্ভার হ্যাক করে ভুয়া জন্ম সনদ নিবন্ধন বিঝারী ইউনিয়ন পরিষদে সদর হাসপাতালে রোগীকে মারধর, ভিডিও ভাইরাল বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯২তম জন্মবার্ষিকী পালিত শরীয়তপুর ২ টি ফিলিং স্টেশনকে ১ লক্ষ টাকা জরিমানা
সারাদেশ আপডেট
শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এমপি-কে ফুলেল শুভেচ্ছা ভূয়া দুদক কর্মকর্তাসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা সখিপুর কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার ডামুড‍্যা উপজেলার আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন- মোঃ আসাদুজ্জামান ভেদরগঞ্জ উপজেলার আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন- মোঃ আসাদুজ্জামান হুমকির মুখে পদ্মা সেতু, বিলীন হওয়ার আশংকা কয়েকটি গ্রাম এর প্রতিবাদে মানব বন্ধন ডামুড্যায় একই দিনে ৩ জনের মৃত্যু ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিদর্শন করলেন ডামুড্যা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাছিবা খান মুক্তিযুদ্ধের সাথে পুলিশের রক্তের ইতিহাস রয়েছে আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে বাংলার বাঘিনীদের অভিনন্দন

সখিপুরে সৎ ছেলে ও স্বামী হাতে প্রথম স্ত্রী খুনের তিন আসামী গ্রেফতার

  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ২২ জুলাই, ২০২২
  • ৭৭ বার পড়া হয়েছে

সখিপুর প্রতিনিধিঃ

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সুখিপুর পারিবারিক কলহের জেরে সন্তানের সামনে স্বামী ও সৎ ছেলের হাতে নুজাহান বেগম (৫০) নামে এক নারীকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর থেকে স্বামী ও সৎ ছেলেরা পলাতক রয়েছে। সোমবার (৬জুন ২০২২) সকালে উপজেলার সখিপুর থানার সখিপুর ইউনিয়নে নইমউদ্দিন সরদার কান্দি গ্রামের নিজ ঘর থেকে লাশ উদ্ধার করে সখিপুর থানা পুলিশ।

পরিবার সুত্রে জানা যায়, ফজলুর বেপারী দীর্ঘদিন  প্রথম স্ত্রীকে রেখে দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে কাচিকাটায় ইউনিয়নে দীর্ঘ দিন বসবাস করেন। গত কয়েকদিন আগে কাচিকাটার ঘরবাড়ি ভেঙ্গে সখিপুরে চলে আসেন। এ অবস্থায় পরের স্ত্রীর ছেলেরা দুজন তার মা এবং সৎ মায়ের সঙ্গে একই বাড়িতে বসবাস করছিল। কিন্তু সৎ মা প্রায়ই নুরজাহানকে তার ছেলে মেয়ের বিষয়ে কটূক্তি করতো। তার পর থেকেই পারিবারিক কলহের সৃষ্টি হয়। গত (৬ জুন) রাতে ফজলুর বেপারী ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী মোকশেদা সহ দ্বিতীয় ঘরের ছেলে শাওন বেপারী (২১) সাগর বেপারী (২৪) ও বিল্লাল। বেপারী (১৮) পরিকল্পিত ভাবে দেশী অস্ত্র নিয়ে এসে ফজলুল বেপারী তার প্রথম স্ত্রীকে ঘর থেকে বের হয়ে যেতে বলার কারনে ঐ কেন্দ্র করে সৎ মায়ের সঙ্গে ঝগড়া-বিবাদে লিপ্ত হয়ে একপর্যায় ছেলে ও মেয়ের সামনে মোকশেদা ও তার দুই ছেলে মিলে নুরজাহানকে এলোপাথাড়ি কুপায় ও পায়ের রগ কেটে ফেলে। এতে নুরজাহান বেগম রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

পরে স্থানীয়রা পুলিশকে সংবাদ দিলে। পুলিশ তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে এসে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এর পর থেকেই পালিয়ে থাকে নুরজাহন বেগম এর খুনিরা। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মামুন বেপারি বাদী হয়ে ৮জন কে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন । যার মামলা নং ০৩ এ বিষয়ে সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান আসাদ হাওলাদার গণমাধ্যমকে জানান, গত (০৬ জুন) সখিপুর থানার নইমুদ্দিন সরদার কান্দি একটি হত্যার ঘটনা ঘটে স্বামী ও সৎ ছেলেদের হাতে প্রথম স্ত্রী খুন  হয়। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মামুন বেপারি

বাদী হয়ে ০৬ জুন ০৮ জনকে আসামী করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং ০৩ স্মারক নং ১৪৯০ (৩)/১ এবং (২১জুলাই) সখিপুর থানা পুলিশ এস আই মিরাজ ও সংগীয় ফোর্সসহ ঢাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করিয়া হত্যা মামলার প্রধান তিন আসামী ১। শাওন বেপারী (২১) ২। সাগর বেপারী (২৪) ও ৩। বিল্লাল বেপারী, উভয় পিতা, ফজলুল হক বেপারী, আসামীদেরকে গ্রেফতার করিতে সক্ষম হয়।

এবং প্রাথমিক জিগ্যাসাবাদে আসামীরা হত্যায় জরিত থাকার কথা শিকার করেছেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

আরো সংবাদ পড়ুন
সম্পাদক :
আনোয়ার হোসেন (বাবু সিকদার)
ফোনঃ 01756054201, 01778862004
ইমেইল: ‍shikdarbabu088@gmail.com
Copyright © শরীয়তপুর পত্রিকা ২০২২
ডিজাইন এবং প্রযুক্তি সহায়তায়: Diggil Agency