জাজিরার কাজীরহাটে দিনদুপুরে প্রকাশ্যে দোকানিকে গুলি করে ১০ লাখ টাকা লুট

অনলাইন//   শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলার ডুবিসায়বর বন্দর কাজীরহাটে দিনদুপুরে প্রকাশ্যে দোকানিকে গুলি করে দোকানের ক্যাশ লুট করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে কাজীরহাট বাজারের পাইকারি মুদি ব্যবসায়ী মিন্টু খালাসির দোকানে ডাকাতদল হানা দেয়।

গুলিবিদ্ধ দোকানি লাভলু মোল্লার (৩০) অবস্থা গুরুতর। তিনি দোকান মালিক মিন্টু খালাসির মামাতো ভাই। তাকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়, পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় নেওয়া হয়।

ডাকাতদল দোকানের ক্যাশ থেকে নগদ প্রায় ১০ লাখ টাকা নিয়ে গেছে বলে দাবি করেছেন মালিক। খবর পেয়ে জাজিরা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আলামত জব্দ করে।

দোকানি মিন্টু খালাসি বলেন, ‘আমি দুপুরে ব্যাংক থেকে ২ লাখ তুলেছিলাম। এ ছাড়া স্থানীয় আরেক ব্যবসায়ী দুলাল মাদবরের থেকে আনা ৬ লাখ এবং সারাদিনে বিক্রির প্রায় ২ লাখসহ ক্যাশবাক্সে ১০ লাখের মতো টাকা ছিল। আমরা দোকানদারি করছিলাম। হঠাৎ কামরুল মোল্লা, নান্নু মোল্লা, কালু মোল্লা, রবিন মোল্লা, জুলহাস মোল্লা এবং হামেদ মোল্লাসহ ১০-১২ জন ধারালো দেশীয় অস্ত্র এবং আগ্নেয়াস্ত্রসহ এসে আমাদের ওপর হামলা করে। এ সময় আমার মামাতো ভাইকে গুলি করে ক্যাশের টাকা নিয়ে চলে যায়।’

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী মিলন মোল্লা জানান, ‘হঠাৎই ডাকাতরা এসে মিন্টুর দোকানে হানা দিয়ে পিস্তল দিয়ে গুলি করে এবং চাইনিজ কুড়ালসহ বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় মিন্টু খালাসি অজ্ঞান হয়ে পড়েন।’

মঙ্গলবার শরীয়তপুরের জাজিরায় দিনের বেলায় প্রকাশ্যে দোকানে হামলা চালিয়ে ক্যাশ লুট করে ডাকাতরা।

বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক ফজলুল হক টেপা বলেন, ‘দোকানে ডাকাতির বিষয়টি শুনেছি। প্রাথমিকভাবে আমরা বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি। প্রশাসন তাদের মতো করে আইনগত ব্যবস্থা নেবে।’

জাজিরা থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে প্রাথমিকভাবে লুটপাটের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত

Posted on